গুপ্তবিদ্যা জানার জন্য

গুপ্তবিদ্যা জানার জন্যঃ

শুধুমাত্র বৃহস্পতিবার দিন মৃত প্যাঁচার চোখ উপড়ে এনে কোনও সুরক্ষিত স্থানে রেখে ও শেষ ভাগকে অর্ধেক রাত্রিতে কোনও চৌরাস্তায় পুঁতে দেবে তারপরে যখন শুল্কা প্রতিপদ আসবে এবং বৃহস্পতিবার পড়বে, সেইদিন প্যাঁচার চোখ শুদ্ধ সুরমায় পিষে কাজল তৈরী করবে।

কাজল তৈরী করার পর, দ্বিতীয় দিন প্রাতঃকালে স্নানাদি সেরে কুশের আসনে পূর্বমুখে বসে কাজলের পাত্রটি সামনে রেখে নিম্নলিখিত মন্ত্র সওয়া লক্ষ (১,২৫,০০০) বার জপ করবে।

মন্ত্র- “ওঁ নমো পেচকরাজায়, লক্ষ্মীবাহনায় কং খং গং ঘং ঙং চং ছং জং ঝং ঞং মেং গুপ্তবিদ্যা প্রদাতু হ্রীং ফট্ স্বাহা।”

উপরোক্ত মন্ত্র প্রত্যেকবার উচ্চারণ করার পর কাজলের পাত্রে ফুঁ  দেবে। পরের পূর্ণিমাতে প্রাতে সেই কাজল নিজের চোখে দিয়ে গুপ্তবিদ্যা অধ্যয়ন করতে শুরু করবে। এই প্রয়োগ দ্বারা গুপ্তবিদ্যা জ্ঞান প্রাপ্ত হয়। এই সাধনা কোনও গুরুর নির্দেশ মতো করবে।

You may also like...

error: Content is protected !!